উদয়ন এক্সপ্রেস চট্টগ্রাম টু সিলেট

আসসালামু আলাইকুম। আজকে আলোচনার বিষয় হল উদয়ন এক্সপ্রেস চট্টগ্রাম টু সিলেট। সিলেট এবং চট্টগ্রাম বাংলাদেশের ইতিহাসে অন্যতম দুইটি জেলা শহর। সিলেট এতটাই গুরুত্বপূর্ণ জায়গা যে, সেখানে যদি যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো না থাকে তাহলে বাংলাদেশের পর্যটন খাত একেবারেই ভঙ্গুর হয়ে যাবে । চট্টগ্রাম পিছিয়ে নেই বাংলাদেশের ব্যবসা খাতে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ একটি শহর হচ্ছে চট্টগ্রাম। ধারণা করা হয় যদি এই চট্টগ্রাম শহরের আবিষ্কার করা না হতো তাহলে বাংলাদেশ এখন পর্যন্ত শিল্প খাতে কখনো এতটা উন্নত হতে পারত না।

এই দুইটি শহরের গুরুত্বের কথা ভেবে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ একটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তে পৌঁছায় এবং এই  সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তারা চট্টগ্রাম এবং সিলেটের মধ্যে চালু করে একটি আন্তঃনগর এক্সপ্রেস ট্রেন। সাধারণত আন্তঃনগর এই এক্সপ্রেস ট্রেনগুলো অত্যন্ত দ্রুত গতিতে চলে এবং এদের সেবার মান অত্যন্ত ভালো তাই। যারা চট্টগ্রাম এবং সিলেটের মধ্যে সরাসরি ট্রেনের মাধ্যমে যাতায়াত করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনের বেশ গুরুত্ব রয়েছে।

আজকে আমরা আপনাদের জন্য এই উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনের বিভিন্ন সময়সূচী এবং উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়া সম্পর্কে জানানোর চেষ্টা করব।যারা বাসের মাধ্যমে চট্টগ্রাম থেকে সিলেটে যাতায়াত করেন তাদের অনুরোধ জানাবো একবার হলেও ট্রেনের মাধ্যমে যাতায়াত করবেন আপনার অভিজ্ঞতা পরিবর্তন করে দেবে এই উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেন।

সিলেট থেকে চট্টগ্রাম ট্রেনের সময়সূচী

অনেকে হয়তো জানে না সিলেট থেকে চট্টগ্রাম এবং চট্টগ্রাম থেকে সিলেটের মধ্যবর্তী ট্রেন যোগাযোগ ব্যবস্থা ভাল করার জন্য এখানকার জন্য স্পেশাল আর একটি ট্রেন আছে। আমাদের আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে তারা খুব সুন্দর ভাবে জানতে পারবে এই ট্রেনের খুঁটিনাটি বিভিন্ন তথ্য।

এর সময়সূচি সম্পর্কে যদি বলতে হয় তাহলে আমরা বলব উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেন সাধারণত দুইটি আছে। একটা চালু হয় চট্টগ্রাম থেকে এবং একটা চালু হয় সিলেট থেকে উভয় দিক থেকে দুইটা ট্রেন ছেড়ে আসে। তাই উভয় দিক থেকে ট্রেন দুটি ছেড়ে আসার সময় এর বেশ মিল রয়েছে এবং তারা নির্ধারিত সময়ে প্রত্যেকটি শহরে প্রবেশ করে। তারপরে তারা যাত্রা বিরতি শেষ করে এবং পরের দিন আবার তারা সেই স্টেশন থেকে গন্তব্যস্থানে পৌঁছায়।

এই ট্রেনের সময়সূচি সম্পর্কে বলতে গেলে চট্টগ্রাম এবং সিলেট থেকে এই ট্রেন ছাড়বে রাত 9 টা 45 মিনিটে। আপনাদের বোঝানোর জন্য আবারও বলছি চট্টগ্রাম থেকে রাত ৯ টা ৪৫ মিনিটে একটা ট্রেন ছেড়ে যাবে সিলেটের উদ্দেশ্যে ঠিক একই সময় সিলেট থেকে আরেকটা চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে ছাড়বে রাত ৯ঃ৪৫ মিনিটে।

যদি চট্টগ্রাম বা সিলেট স্টেশনে এই উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনের পৌঁছানোর সময়ের কথা উল্লেখ করতে হয় তাহলে উভয় ট্রেন ভোর ছয়টাতে পৌঁছানোর কথা আছে। আপনি ধরে নিতে পারেন এই উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেন ভোর ছয়টা পাঁচ মিনিটে চট্টগ্রাম এবং সিলেট স্টেশনে পৌছাবে।

সিলেট থেকে চট্টগ্রাম ট্রেনের ভাড়া

সিলেট থেকে চট্টগ্রাম অথবা চট্টগ্রাম থেকে সিলেট আসার ভাড়া একেবারে সামান্য। আপনারা যদি শোভন আসনে যাতায়াত করেন তাহলে শুধুমাত্র ১০০ টাকা এবং শোভন চেয়ারে যাতায়াত করলে ১২০ টাকা ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রথম শ্রেণীর আসনে যারা সিলেট থেকে চট্টগ্রাম অথবা চট্টগ্রাম থেকে সিলেটে উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনে যাতায়াত করবেন তাদের জন্য ভাড়া ১৬০ টাকা।

এই অল্প ভাড়াতে আপনি খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে চট্টগ্রাম থেকে সিলেটে যাতায়াত করতে পারবেন আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে এখানে রয়েছে আরও বিশেষ কিছু সুবিধা। এ ট্রেনের মধ্যে আপনি পেয়ে যাবেন ক্যান্টিনের ব্যবস্থা এই ট্রেনের মধ্যে আপনি পেয়ে যাবেন নামাজ পড়ার জন্য সুব্যবস্থা এছাড়াও সুরক্ষার ব্যবস্থা তো রয়েছেই। এর পাশাপাশি ট্রেনে যাতায়াত করার ক্ষেত্রে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে ট্রেন সঠিক সময় যাত্রা শুরু করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *